সর্বশেষ :

গাজীপুরে সংবাদ প্রকাশের জের ধরে দুই সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টা


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : জুলাই ২১, ২০২৩ । ১:৩৮ অপরাহ্ণ
গাজীপুরে সংবাদ প্রকাশের জের ধরে দুই সাংবাদিককে হত্যাচেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক : গাজীপুরে সাংবাদিক নাদিমের রক্তের দাগ না শুকাতেই আবারও গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে দুইজন সাংবাদিকের ওপর হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়েছে মাদকব্যবসায়ীরা। পূর্বে মাদক সম্পর্কিত সংবাদ প্রকাশের জের ধরে কোনাবাড়ীতে দৈনিক সময়ের কথা পত্রিকার সাংবাদিক মোঃ মফিজুল ইসলাম ও মোঃ রহিমের ওপর এই হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) রাত ৮টায় নিউজ করার আমন্ত্রণ জানিয়ে সন্ত্রাসীরা এই হামলা চালায়। পরে, পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশকের অনুমতিতে বৃহস্পতিবার (২০ জুলাই) কোনাবাড়ী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন সাংবাদিক মফিজুল ইসলাম।

ঘটনাসূত্রে জানা যায়, আসামী অরন্যের সাথে পূর্ব পরিচিত সেই সুবাদে সাংবাদিক মোঃ মফিজুল ইসলামকে একটি নিউজ প্রকাশ করার জন্য তথ্য দেয়ার কথা বলে মোবাইলে ডাকে। সাংবাদিক সরল বিশ্বাসে তাদের কথা বিশ্বাস করে আসতে রাজি হয়। তারা দুই সাংবাদিককে যমুনা গার্মেন্টস সংলগ্ন হক মেডিক্যালের ভিতরে যেতে বলে। তাঁর কথা মত রহিমকে নিয়ে ঐ স্থানে যান সাংবাদিক মফিজুল ইসলাম।

সাংবাদিক মফিজুল ইসলাম বলেন, তাঁর কথা মত যাওয়ার পরে দেখতে পাই মাদক ব্যবসায়ী ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী মনির এবং তার সাঙ্গপাঙ্গ আলিম, তুষার, করম আলী, হরিদাশ, ছনেট সহ ৪/৫ জন আগে থেকেই বসে আছে। তাঁরা এলাকায় বিএনপি জামাতের এজেন্ট হিসাবে বেশ পরিচিত।

সাংবাদিক মফিজুল আরও বলেন, আমি ওখানে উপস্থিত হওয়ার সাথে সাথে সন্ত্রাসী মনির চেয়্যার থেকে লাফ দিয়ে উঠে দাঁড়িয়ে চেঁচিয়ে বলতে থাকে “আমাদের বিরুদ্ধে নিউজ করার চেষ্টা করছিস তোর এতবড় সাহস” এই বলে আমাদের কাঠের রুল দিয়ে বেদম পেটাতে থাকে। এতে আমাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক রক্তাক্ত যখম হয়। আমাদের পকেটে থাকা নগদ সাত হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়।আসামীদের এলোপাথাড়ি মারের আঘাত করার সময় সাংবাদিক রহিমের এন্ড্রয়েট মোবাইল ফোনটি ভেঙ্গে মারাত্মক ক্ষতি হয়। আমাদের ডাক চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে আসামীরা পালিয়ে যাওয়ার সময় হুমকি দিয়ে বলে “পরে সুযোগ মতো পাইলে তোদের মেরে লাশ গুম করে ফেলবো। আর যদি এ বিষয়ে থানা পুলিশ করিস বা পত্রিকায় নিউজ প্রকাশ করিস তাহলে তোদের যে কি অবস্থা করি পরে বুঝতে পারবি”।

সাংবাদিক রহিম বলেন, পরে এলাকাবাসী আমাদের উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাসাই নিয়ে আসে। পরে দৈনিক সময়ের কথা পত্রিকার সম্পাদক ও পরিবারের আত্মীয় স্বজনের সাথে আলাপ আলোচনা করে সাংবাদিক মফিজুল ইসলাম বাদী হয়ে কোনাবাড়ী থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৪/৫ জন অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর সুষ্ঠু বিচার চাই৷ অতিদ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক।

অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন কোনাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আশরাফুল ইসলাম। তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান এই অফিসার্স ইনচার্জ।

পুরোনো সংখ্যা

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
%d bloggers like this: