নিউইয়র্কে পাপ্পারাৎজ্জিদের তাড়ায় গাড়ি দুর্ঘটনার ‘বিপর্যয়ের কাছাকাছি’ প্রিন্স হ্যারি-মেগান


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : মে ১৮, ২০২৩ । ১২:৩৭ অপরাহ্ণ
নিউইয়র্কে পাপ্পারাৎজ্জিদের তাড়ায় গাড়ি দুর্ঘটনার ‘বিপর্যয়ের কাছাকাছি’ প্রিন্স হ্যারি-মেগান

প্রিন্স হ্যারি এবং তার স্ত্রী মেগান মার্কেল নিউইয়র্কে পাপ্পারাৎজ্জিদের তাড়ায় একটি ‘বিপর্যয়কর গাড়ি দুর্ঘটনার কাছাকাছি’ পৌঁছেছিলেন। এই দম্পতির এক মুখপাত্র বুধবার এ কথা বলেছেন।

তবে পুলিশ এবং এমনকি নিউইয়র্ক সিটির মেয়র, সেইসাথে একজন ট্যাক্সি ড্রাইভারের সহায়তায় এই পরিস্থিতি থেকে তারা বেরিয়ে আসেন। ট্যাক্সি ড্রাইভার এই দম্পতিকে বহন করে বিপর্যয়ের মুহূর্ত থেকে সরিয়ে নেন।

প্যারিসের গাড়ি দুর্ঘটনায় হ্যারির মা প্রিন্সেস ডায়ানা নিহত হওয়ার প্রায় ২৬ বছর পর মঙ্গলবার রাতে এই দম্পতি স্বল্প সময়ের ব্যবধানে দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পান। এই ঘটনার জন্য হ্যারি পাপারাৎজ্জিকে দায়ী করেছেন।

হ্যারি (৩৮) এবং মেঘান (৪১) নিউইয়র্কে মেগানের মা ডোরিয়া রাগল্যান্ডের সাথে একটি পুরষ্কার অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পরে এই ঘটনা ঘটে।

মুখপাত্র ই-মেইলে এএফপি’কে পাঠানো এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘পাপ্পারাৎজ্জিারা মারাত্মকভাবে গত রাতে সাসেক্সের ডিউক এবং ডাচেস এবং মিসেস রাগল্যান্ডকে বহনকারী গাড়ির পিছু নেয়ায় এই বিপর্যয়কর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।’

মুখপাত্র বলেন, ‘দুই ঘন্টারও বেশি সময় ধরে পাপ্পারাৎজ্জিদের পশ্চাৎধাবনে  রাস্তায় তাদের গাড়ির কাছকাছি অন্যান্য চালক, পথচারী এবং দুইজন এনওয়াইপিডি (নিউইয়র্ক পুলিশ) অফিসারের গাড়ির সঙ্গে সংঘর্ষের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।’

এই দম্পতির ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানিয়েছে, মেগান এবং হ্যারিকে অর্ধডজন কালো গাড়ি তাড়া করেছে। ‘অজ্ঞাত ব্যক্তিরা বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালাচ্ছিল এবং এতে তাদের বহর এবং তাদের আশেপাশের সবাইকে বিপদে ফেলেছিল।’

‘এই ধাওয়া মারাত্মক হতে পারত’ উল্লেখ করে সূত্র দাবি করেছে, এরমধ্যে সম্ভাব্য ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন – যার মধ্যে ফুটপাতে গাড়ি চালানো, লাল বাতি জ্বালানো এবং একমুখী রাস্তায় উল্টো পথে গাড়ি চালানো হয়।

নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘অনেক ফটোগ্রাফার ছিল যারা তাদের পরিবহনকে চ্যালেঞ্জিং করে তুলেছিল।’

এনওয়াইপিডির মুখপাত্র জুলিয়ান ফিলিপস এএফপি’কে বলেছেন, ‘সাসেক্সের ডিউক এবং ডাচেস তাদের গন্তব্যে পৌঁছেছেন এবং কোনও সংঘর্ষ, আহত বা গ্রেপ্তারের খবর পাওয়া যায়নি।’

মিডিয়ার সাথে হ্যারির দীর্ঘদিন ধরে একটি কঠিন সম্পর্ক ছিল। ১৯৯৭ সালে প্যারিসের একটি টানেলে গাড়ি দুর্ঘটনায় তার মায়ের মৃত্যুর জন্য পাপ্পারাৎজ্জিদের ডায়ানার গাড়ি অনুসরণকে দায়ী করেন।

পুরোনো সংখ্যা

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১  
%d bloggers like this: