সর্বশেষ :

রাজশাহীতে সড়ক ও জনপদ বিভাগের নোটিশবিহীন বসতবাড়ি ভাংচুর


অনলাইন ডেস্ক
প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৭, ২০২২ । ৪:৫৭ অপরাহ্ণ
রাজশাহীতে সড়ক ও জনপদ বিভাগের নোটিশবিহীন বসতবাড়ি ভাংচুর

মানিক হোসেন, রাজশাহী(বিভাগীয়)প্রতিনিধি :

রাজশাহীতে সড়ক ও জনপদ বিভাগের পক্ষ থেকে পবা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) অভিজিৎ সরকার নোটিশবিহীন বসতবাড়ি ভাংচুরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এমন ঘটনায় ভুক্তভোগী রাবেয়া খাতুনের পরিবার প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা পরিমাণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এমন অভিযোগে শনিবার (১৭ ডিসেম্বর) বেলা ১২টায় রাজশাহী মডেল প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী রাবেয়া খাতুন।

ভুক্তভোগী রাবেয়া খাতুন রাজশাহীর মতিহার থানাধীন ললিতাহার এলকার মোঃ হারুনুর রশিদের স্ত্রী।

জানা গেছে, পবার ভূমি সহকারী কমিশনার অভিজিৎ সরকার সেখানে ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্বে থেকে এই ভাংচুর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী রাবেয়া খাতুন ।

সংবাদ সম্মেলনে পঠিত বক্তব্যে রাবেয়া খাতুন জানান, তিনি পৈতৃক সূত্রে ও ভাই-বোনদের দেওয়া রেজিস্ট্রিকৃত ললিতা হার মৌজার ২৭ নং খতিয়ানের ৯৩৫ নম্বর দাগে ১৭ শতক জমির মালিক।
একই দাগে ৭৩ নাম্বার খতিয়ানে বিগত ১৯৯৪ ও ৯৫ সালে সড়ক ও জনপদ বিভাগ রাস্তার প্রশস্ত করনের কাজে জমি অধিকরণ করেছিল। গত সোমবার (১২ ডিসেম্বর) সড়ক ও জনপদ বিভাগ আমাদের কোনরকম নোটিশ ছাড়াই হঠাৎ করেই আমাদের নিজস্ব ১৭ শতক জমিতে অবস্থিত আমাদের বসতবাড়ি ভাঙতে শুরু করেন। পবার সহকারী কমিশনার ভূমি অভিজিৎ সরকার সেখানে ম্যাজিস্ট্রেটের দায়িত্ব পালন করেন। আমরা আমাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র তাঁদের দেখানো সত্ত্বেও পবার সহকারী কমিশনার (ভূমি) কোনরকম কর্ণপাত করেননি।

এমন অবস্থায় আমার স্বামী রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দ্রুত গিয়ে ডিসি মহোদয়কে কাগজপত্র দেখালে তিনি তৎক্ষণাৎ অভিজিৎ সরকারকে বাড়ি ভাঙতে নিষেধ করেন। ততক্ষণে আমাদের বাড়ির আসবাবপত্রসহ ব্যবহারের জিনিসপত্র এবং বাড়ির অধিকাংশ ভাঙ্গা হয়ে যায়।

আমরা গরিব অসহায় মানুষ একমাত্র থাকার জায়গাটিও ভেঙে ফেলার ফলে মানবতার জীবন যাপন করছি এমন অবস্থায় পবার সহকারী কমিশনার ভূমি অভিজিৎ সরকার আমাদের বৈধ কাগজপত্র দেখানোর পরেও কেন বাড়িঘর ভাঙ্গার আদেশ দিলেন এবং আমাদের যে ক্ষতি হয়েছে সেই ক্ষতিপূরণের দাবি জানাচ্ছি এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এবিষয়ে পবা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অভিজিৎ সরকারকে ফোন করা হলে ফোন ধরেননি।

পুরোনো সংখ্যা

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
%d bloggers like this: